বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৮:৫৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :

নওগাঁয় কলেজ ছাত্রী রিংকু হত্যা মামলা’ কথিত প্রেমিক ও তার বাবাকে আটক করেছে পুলিশ

ইকরামুল হাসান : প্রকাশক
  • Update Time : রবিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৪৮ Time View

মোঃ সারোয়ার হোসেন অপু,
বিশেষ প্রতিনিধিঃ

নওগাঁ জেলা সদর উপজেলার তিলকপুর ইউনিয়ন এর নারায়ণপুর গ্রামের তুলশী গঙ্গা নদীর বেড়ি বাঁধের উপর পাকা রাস্তার পাশ থেকে গত মঙ্গলবার সকালে তাসফিয়া তাবাসসুম রিংকু (১৮) নামে এক কলেজ পড়ুয়া ছাত্রী (যুবতী’র) মৃতদেহ উদ্ধার এর ঘটনায় ছাত্রী রিংকুর মা শাহিনা বেগম বাদী হয়ে নাঈম ও আলাউদ্দিন নামের ২ জনকে আসামী করে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়ের করার পর এজাহার নামীয় দু’জন কে আটক করে শনিবার দুপুরে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে থানা পুলিশ।
নিহত রিংকু আক্তার জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর উপজেলার তিলকপুর ইউনিয়ন এর রাইকালী গ্রামের মৃত রাজ্জাক এর মেয়ে ও রাইকালী কলেজে একাদশ শ্রেণিতে পড়ুয়া ছাত্রী ছিলো।
আটককৃত বাবা ও ছেলে দু’জন হলেন, জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুর উপজেলার মাটিয়াকুরি গ্রামের আলাউদ্দীনের ছেলে নাঈম ও সহযোগি হিসেবে একই গ্রামের মৃত আব্দুল আজিজ মন্ডলের ছেলে আলাউদ্দীন।
থানা সুত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার দিবাগত-রাতে রাজশাহী জেলার পবা থানা ও জয়পুরহাট জেলার আক্কেলপুরে অভিযান চালিয়ে বাবা ও ছেলে দু’ জন কে আটক করা হয়েছে। আটকের পরে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, নিহত রিংকু ও নাঈম এর মাঝে দীর্ঘ দিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিলো এই সম্পর্কে পরিবার বাধা হয়ে দাড়ালে গত সোমবার ২৭ নভেম্বর সকালে তারা কোর্ট ম্যারেজ করার জন্য বাড়ি থেকে বেরিয়ে একটি অটো রিক্সায় করে রাজশাহী কোর্টের উদ্দেশ্যে রওনা হয়, দু’জনের মধ্যে নওগাঁ কোর্টে অথবা রাজশাহী কোর্টে যাওয়া নিয়ে তর্ক বিতর্ক আর ধস্তা-ধস্তির এক পর্যায়ে চকগৌরী এলাকায় মেইন রাস্তায় অটো রিক্সা থেকে রিংকু পড়ে যায়। সেখানে সে মাথা ও হাত পায়ে গুরুতর যখম হলে তাকে বাঁচানোর জন্য প্রেমিক নাঈম দ্রুত মান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তার অবস্থা খারাপ দেখে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নিয়ে রিংকুকে চিকিৎসার পরামর্শ দেন। এসময় কথিত প্রেমিক নাঈম ভঁয় পেয়ে তার বাবা আলাউদ্দীনের সাথে আলোচনা করলে তার বাবা রাজশাহী ইসলামি হাসপাতালে নেওয়ার পরামর্শ দেয়। সেখান থেকে দ্রুত এ্যাম্বুলেন্স যোগে তাকে রাজশাহী ইসলামি হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। এরপর নাঈম ও তার বাবা ভঁয় পেয়ে রিংকুর মৃতদেহটি এনে রাতের আধারে তিলকপুর ইউনিয়ন এর নারায়ণপুর গ্রামের তুলশীগঙ্গা নদীর বেড়ি বাঁধের উপর পাকা রাস্তার পাশে ফেলে পালিয়ে যায়।
সত্যতা নিশ্চিত করে নওগাঁ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাঃ ফয়সাল বিন আহসান বলেন, এ ঘটনায় পৃথক দুটি জেলা ও উপজেলায় অভিযান চালিয়ে বাবা ও ছেলেকে আটক করা হয়েছে। নাঈম ও রিংকুর মধ্যে দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিলো বলে আটককৃত নাঈম শিকার করেছেন, তারা বিয়ের জন্য রাজশাহী যাওয়ার পথে রাস্তায় মেয়েটি পড়ে যায় এবং পরে তার মৃত্যু হয়। এঘটনায় একটি কলেজ ব্যাগ ও একটি ভ্যান জব্দ করে হত্যা মামলায় তাদেরকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Design & Develop BY Coder Boss
themesba-lates1749691102