বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৯:৫৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :

ইয়াংছা কুমারী ইউনিট আওয়ামী লীগের উদ্যোগে মহান বিজয় দিবস পালিত হয়েছে

বার্তা সম্পাদক
  • Update Time : শনিবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ২৬ Time View

মুহাম্মদ এমরান
বান্দরবান

ইয়াংছা কুমারী ইউনিট আওয়ামী লীগ এর উদ্যোগে মহান বিজয় দিবস পালিত হয়েছে।
(১৬ই ডিসেম্বর) শনিবার ইয়াংছা উচ্চ বিদ্যালয়ে অস্থায়ী শহিদ মিনারে ফুল দিয়ে জাতীয় সংগীত ও র‍্যালীর মধ্য দিয়ে এ দিবস পালিত হয়েছে।

১৬ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস। বাঙালি জাতির হাজার বছরের শৌর্যবীর্য এবং বীরত্বের এক অবিস্মরণীয় দিবস এদিন। বীরের জাতি হিসেবে আত্মপ্রকাশসহ পৃথিবীর মানচিত্রে বাংলাদেশ নামে একটি স্বাধীন ভূখন্ডের নাম জানান দেয়ার দিন।

(১৬ ডিসেম্বর) শনিবার বিজয়ের সেই শুভক্ষণের ৫৩তম বার্ষিকী। সেই সঙ্গে গর্বময় এক বিষাদের সঙ্গে স্মরণ করা হয়, লাল-সবুজের এই পতাকার জন্য প্রাণ দেওয়া লাখো শহীদদেরকে।

মহান বিজয় দিবস-২০২৩ উপলক্ষে ইয়াংছা কুমারী ইউনিট  আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠন কর্তৃক আয়োজিত বিজয় র‍্যালীতে উপস্থিত ছিলেন,বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, ইয়াংছা কুমারী ইউনিট শাখার সভাপতি, মমতাজ আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক,আপ্রুসিং মার্মা,সাংগঠনিক সম্পাদক,আবু ওমর। মোঃ রুহুল কাদের।
বাংলাদেশ আওয়ামী যুব লীগ,ইয়াংছা কুমারী ইউনিট শাখার সাধারণ সম্পাদক,মোঃ সানাউল হক। বাংলাদেশ আওয়ামী কৃষক লীগ, ইয়াংছা কুমারী ইউনিট শাখার সভাপতি, মোঃ জামাল উদ্দিনসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

জাতীয় সংগীত এর মধ্য দিয়ে ইয়াংছা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে আনন্দ র‍্যালী শুরু করে বধুরঝীরি রাস্তা দিয়ে আবারো ইয়াংছা উচ্চ বিদ্যালয়ে চলে আসে। এর পরে ইয়াংছা উচ্চ বিদ্যালয়ের হলরুমে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভায়, সকল বীর শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জ্ঞাপণ করে বক্তারা বলেন, শ্রদ্ধা ভরে স্মরণ করছি রক্তক্ষয়ী মুক্তি যুদ্ধের সকল মুক্তিযোদ্ধা ও বীর শহীদদের যারা এই দেশটাকে ভালোবেসে দিয়ে গেছেন প্রাণ।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ১৯৪৮ সাল থেকে ৫২’র ভাষা আন্দোলন,৬৬’র ছয় দফা, ৬৯’র গণঅভ্যুত্থান,১৯৭১ এর ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ, ২৫ মার্চে গণহত্যা শুরু হলে ২৬ মার্চের প্রথম প্রহরে বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণা, ১৭ এপ্রিল মুজিবনগর সরকার গঠন এবং রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে ৩০ লাখ শহীদ ও দু’লাখ মা-বোনের আত্মত্যাগের বিনিময়ে অর্জিত হয় স্বাধীনতা।
১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর পাক সেনাদের আত্মসমর্পণের মধ্য দিয়ে চূড়ান্ত বিজয় অর্জিত হয়। সেই হিসাবে বিজয়ের ৫৩ বছর পূর্তির দিন। আমরা আত্মত্যাগী সেই সব বীরদের গভীর শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করি ।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Design & Develop BY Coder Boss
themesba-lates1749691102