মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০৭:৪৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
অভয়নগরবাসী আমাকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করলে অসহায় মানুষের পাশে থাকবো, ডাঃ সাফিয়া খানম পাইকগাছায় ভাইস-চেয়ারম্যান প্রার্থী চশমা প্রতীকের হাবিবুর রহমানের গণসংযোগ ও লিফলেট বিতরণ চট্টগ্রাম মহানগরীতে চালু হচ্ছে এসি বাস সার্ভিস নিরাপদ অভিবাসন ও বিদেশ ফেরতদের পুনরেকত্রিকরণ শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত গজারিয়া হোসেন্দী ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এর দ্বায়িত্ব গ্রহণ বিশ্ব মেডিটেশন দিবস সুবর্ণচরে মসজিদে ডুকে ইমামকে পেটালেন যুবদল নেতা কবিতাঃ দল পাকিয়ে গোদাগাড়ীতে গলায় ফাঁস দিয়ে মুরসালিন নামের একজনের আত্মহত্যা গোদাগাড়ী মডেল থানার পুলিশের অভিযানের ৬০ গ্রাম হেরোইনসহ আটক ২ জন

গজারিয়া ভবেরচর জেনারেল হাসপাতালে অপ চিকিৎসায় নবজাতক মৃত্যু’র অভিযোগ

টি আই, মাহামুদ - নির্বাহী সম্পাদক
  • Update Time : রবিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২৪
  • ১৯ Time View

!!

ওসমান গনি
মুন্সিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ

মুন্সীগঞ্জ গজারিয়ায় উপজেলার ভবেরচর জেনারেল হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের  অপচিকিৎসার কারনে নবজাতক  শিশুর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শনিবার (১৩ এপ্রিল )সকাল ১১ঘটিকায় উপজেলার ভবেরচর জেনারেল হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে নরমাল ডেলিভারি করানোর সময় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার জন্য প্রসূতির স্বজনরা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে দায়ী করেছেন। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে হাসপাতালে উত্তেজনা দেখা যায়।

মারা যাওয়া নবজাতক উপজেলার  ইমামপুর ইউনিয়নের বড় কালিপুরা গ্রামের বাসিন্দা আমির হাসানের ছেলে বলে জানান যায়।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, প্রসুতি মমতাজ  আক্তারের শনিবার সকালে ৯ টায় তার প্রসব ব্যথা হলে গজারিয়া  উপজেলা ভবেরচর জেনারেল হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে ভর্তি করান,
সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে ডাক্তার ছাড়াই নার্সদের মাধ্যমে ঐ প্রসূতির নরমাল ডেলিভারির চেষ্টা   করতে গিয়ে নবজাতক ঐ শিশুকে মেরে ফেলে।জানা যায়,ডেলিভারির সময় নবজাতক শিশুর মাথা আটকে যায়,এ সময় প্রচুর রক্তক্ষরণ হতে থাকলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাৎক্ষণিক ঐ প্রসুতিকে ঢাকা নিয়ে যেতে বলে দ্রুত অ্যাম্বুলেন্স এর ব্যবস্থা করে ঢাকা মেডিকেলের রেফার করে।

নিহতের নবজাতকের বাবা আমির হাসান জানান, চিকিৎসায় অবহেলার কারণে আমার বাচ্চার মৃত্যু হয়েছে।ভর্তি নেওয়ার পর থেকেই নানা ধরনের অবহেলা করতে থাকেন হাসপাতালের লোকজন।
ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালে নেওয়ার জন্য রওনা হলে পথের মধ্যে প্রচুর রক্তক্ষনে ও ব্যথার যন্ত্রণায় কাথর হলে কো- অ্যাক্টিভ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক আমার বাচ্চাকে মৃত ঘোষণা করেন।এ বিষয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে বলতে গেলে তাঁরা আমাকে হুমকি দিচ্ছেন।

এদিকে ঘটনাকে কেন্দ্র করে নিহতের নবজাতকের  আত্মীয়-স্বজন হাসপাতালে জড়ো হলে উত্তেজনা দেখা দেয়।

এ বিষয়ে গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: সুমাইয়া ইয়াকুব বলেন, বিষয়টি শুনেছি,তবে ভুক্তভোগী কেউ অভিযোগ দেয়নি, অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

গজারিয়া থানার অফিসার ইন চার্জ মো:রাজিব খাঁন বলেন,এ বিষয়ে একটা অভিযোগ পেয়েছি, যাচাই বাছাই পূর্বক আইন গত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Design & Develop BY Coder Boss
themesba-lates1749691102